টিপস : উইন্ডোজ ৮ রিফ্রেশ বা রিইনস্টল করা


উইন্ডোজের কোনো সমস্যা হলে অনেক সময় উইন্ডোজ রিইনস্টল করার প্রয়োজন হয়। উইন্ডোজ ৮-এ রিফ্রেশ নামের একটি ফিচার আছে যার দ্বারা ডেক্সটপের ফাইলসহ সেটিংসগুলো ঠিক রেখেই উইন্ডোজকে রিইনস্টল করা যায়। ফাইলসহ সেটিংসগুলো ঠিক থাকলেও ইনস্টল করা অন্য প্রোগ্রামগুলো থাকবে না, তবে কোন কোন প্রোগ্রাম ইনস্টল করা ছিল তার তালিকা Removed Apps নামে একটি এইচটিএমএল ফাইলে ডেক্সটপে থাকবে।
রিফ্রেশ বা রিইনস্টল করতে Windows Key+C চাপুন অথবা ডেক্সটপের নিচে/উপরে ডান মাউস রাখুন। এখানে Settings-এ ক্লিক করে নিচের Change PC Settings-এ ক্লিক করুন।
PC Settings-এর বাম পাশের General-এ ক্লিক করে ডানের Refresh your PC without affecting your files এর Get started বাটনে ক্লিক করে Next বাটনে করুন।
তাহলে কম্পিউটারে উইন্ডোজ নতুন করে ইনস্টল হবে এবং রিস্টার্ট হবে। পরে বেশকিছু কনফিগার করতে হবে। যদি উইন্ডোজের কোনো ফাইল নষ্ট বা মুছে যায় সেক্ষেত্রে উইন্ডোজের ডিক্সটির প্রয়োজন হতে পারে।
উইন্ডোজের রিফ্রেশ হলে পুরনো উইন্ডোজে কিছু থেকে যেতে পারে, এর মধ্যে সি ড্রাইভের Windows.old অন্যতম। পুরনো ফাইল মুছে ফেলতে রানে গিয়ে cleanmgr.exe লিখে এন্টার করুন এবং ডিক্স ক্লিনআপে Ok করুন। এখানে Clean up System Files বাটনে ক্লিক করে আবারও Ok করুন। এরপরে File to Delete এ Previous Windows installation(s) নির্বাচন করে Ok করুন এবং Delete Files বাটনে ক্লিক করুন। তাহলে Windows.old ফোল্ডারসহ পুরনো উইন্ডোজের অপ্রয়োজনীয় সিস্টেম ফাইলগুলো মুছে যাবে।

ফায়ারফক্সের জন্য ফেসবুকের মেসেঞ্জার
জনপ্রিয় সামাজিক সাইট ফেসবুক মজিলা ফায়ারফক্সের ব্রাউজারের জন্য তাদের মেসেঞ্জার অবমুক্ত করেছে। ফলে ব্রাউজারে ফেসবুকে লগইন অবস্থায় পেজে না গিয়েও চ্যাটিং করা, ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট নিয়ন্ত্রণ করা, মেসেজ দেখা বা নোটিফিকেশন দেখা যাবে। এই মেসেঞ্জারটি http://www.facebook.com/about/messenger-for-firefox থেকে ইনস্টল করতে হবে। মেসেঞ্জারটি ইনস্টল করার জন্য উপরোক্ত লিঙ্কে গিয়ে Turn On বাটনে ক্লিক করে পপআপ উইন্ডোতে Ok করুন, তাহলে ফায়ারফক্সের নেভিগেশন বারের ডানে ফেসবুকের চারটি বাটন আসবে এবং ডানে চ্যাটিংবার (সাইডবার বা মেসেঞ্জার) আসবে। নেভিগেশন বারের চারটি বাটনের প্রথমটি ফেসবুক বাটন, যার দ্বারা সাইডবার এবং ডেক্সটপ নোটিফিকেশন অন/অফ করা যাবে, দ্বিতীয়টি ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট, তৃতীয়টি মেসেজ এবং চতুর্থটি নোটিফিকেশন বাটন। তবে ফেসবুকের লগ অন করা না থাকলে শুধু প্রথম বাটনটি আসবে। বাটনগুলো নেভিগেশন বার থেকে লুকাতে চাইলে টুলস মেনু থেকে Facebook Messenger for Firefox-এ আনচেক করলেই হবে। এই মেসেঞ্জারের জন্য মজিলা ফায়ারফক্স ১৭ বিটা বা পরবর্তী সংস্করণ ইনস্টল থাকতে হবে। ফায়ারফক্সের ব্লগের তথ্য http://www.goo.gl/CDU4m।

উইন্ডোজ ৮-এর স্টার্ট মেনু
মাইক্রোসফটের নতুন অপারেটিং সিস্টেমে গতানুগতিক স্টার্ট মেনু নেই। তবে কিবোর্ড থেকে উইন্ডোজ কি চাপলে নতুন ধরনের স্টার্ট মেনু আসে যা আগের সংস্করণের সঙ্গে মিল নেই। ফলে ব্যবহারকারীদের পুরনো ধাঁচের স্টার্ট মেনুর প্রয়োজন হয়। এমনই কয়েকটি স্টার্ট বাটনের অ্যাপলিকেশন তালিকা দেয়া হলো।
http://www.startmenux.com
http://www.pokki.com/windows-8-start-menu
http://www.revel-software.it/BringBack.aspx
http://www.iobit.com/iobitstartmenu8.php
http://www.lee-soft.com/vistart/
http://www.classicshell.sourceforge.net/
https://code.google.com/p/power8/
http://www.www.spesoft.com/free-windows-8-start-menu.aspx

@ASIF BHUIYAN@

feni.asif@yahoo.com

Advertisements
By rahmatullahbhuiyan Posted in IT

আগামী দিনের যুদ্ধাস্ত্র ই-বোমা


Asif
আগামী দিনের যুদ্ধাস্ত্র ই-বোমা

এ যুগের আর পৌরণিক যুগের যুদ্ধের মধ্যে বিরাট পার্থক্য থাকলেও এক জায়গায় বেশ সাদৃশ্য রয়েছে। দু’যুগেই যুদ্ধ মানে রক্তপাত-নিপীরন, অস্ত্রের ঝনঝনানী, ধ্বংসস্তূপ। কিন্তু আগামী দিনগুলোতে এ দৃশ্য পুরোপুরী বদলে যেতে পারে। আগামী দিনের যুদ্ধে এক ফোটাও রক্তপাত হবে না, একটি বাড়িও ধ্বংস হবে না। তার বদলে মানব জীবনে নেমে আসবে এক ভয়াবহ নিস্তদ্ধতা, কর্মচঞ্চল জনপথ হয়ে যাবে স্তদ্ধ। আর এ অবস্থার সৃষ্টি করবে ইলেকট্রোম্যাগনেটিক বোমা। সংক্ষেপে বলা যায় ই-বোমা। প্রচলিত বোমার থেকে একেবারে আলাদা এই বোমা, মুহূর্তের মধ্যে পতন ঘটাতে পারে আধুনিক একটি নগরীর। কিন্তু কি রয়েছে এই ই-বোমায়, আর কেনই বা এটি এত ধ্বংসাত্মাক? আসলে প্রযুক্তির প্রতি আমাদের নির্ভশীলতাই এ সর্বনাশ ঘটাবে। ই-বোমা তৈরি হচ্ছে আমাদের এ দূর্বলতার সুযোগেই। বোমাটি তৈরি করাও খুব বেশি জটিল কিছু নয়। এটি আসলে বেতার তরঙ্গ বা মাইক্রোওয়েভের উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন ফ্ল্যাশ। যা যে কোন ইলেকট্রনিক্স সার্কিটে আঘাত করে মুহূর্তের মধ্যে তাকে ছাই বানিয়ে ফেলতে পারে। ই-বোমা শুধু মাত্র ইলেকট্রনিক্স সার্কিটেই আঘাত করে বলে একে ই- বোমা বলা হয়।
কম্পিউটার প্রযুক্তি এখন পুরো বিশ্বকে এক সুত্র গেঁথে দিয়েছে। উন্নত বিশ্ব এখন আনেকটাই প্রযুক্তি নির্ভর। একটা সময় আসবে যখন বিশ্বের প্রতিটি দেশই কম্পিউটার প্রযুক্তি নির্ভর হয়ে পরবে। তখন এই ই-বোমা কম্পিউটার সিস্টেমে আঘাতহেনে বিরাট ক্ষতি সাধন করেত পারে। যার ফলে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিপর্যস্ত হতে পারে, যাতায়াত ব্যবস্থা স্থবির হয়ে যেতে পারে, অর্থ বাজারে নামতেপরে ধস, এমন কি ধ্বংস হয়ে যেতে পারে পুরো কস্পিউটার নেটওয়ার্ক। Continue reading

By rahmatullahbhuiyan Posted in IT